[gtranslate]

বিএডিসি’র সহায়তায় সাভারে ফুল-সবজি চাষে অভাবনীয় সফলতা।

প্রকাশিতঃ ৬:০১ পূর্বাহ্ণ | নভেম্বর ১৪, ২০১৯


 কৃষিবিদ দীন মোহাম্মদ দীনু।

সাভারের গোলাপ গ্রামে বিএডিসি’র গভীর নলকূপের মাধ্যমে ফুল ও সবজি চাষে অভাবনীয় সফলতা পেয়েছে চাষিরা।প্রতিদিন হাজারো দর্শনার্থীর ভীড় বাড়ছে এ গ্রামে।

ডীপ ইরিগেশনের মাধ্যমে স্বল্প সেচ ও পলিশেডের মাধ্যমে নিরাপদ বিষমুক্ত সবজি এবং জারবেরা, গ্ল্যাডিওলাস ও উন্নত জাতের গোলাপ উৎপাদন করা যেতে পারে । সাভার এলাকার লাল মাটির জমি এ ফুল ও সবজি চাষের জন্যও উপযুক্ত। এসব তথ্য জানিয়েছেন বিএডিসি এর নির্বাহী প্রকৌশলী ও সাধারণ সম্পাদক বিএডিসি প্রকৌশলী সমিতি  মোহাম্মদ ওয়াহিদুল ইসলাম।

তিনি আরও জানান,সাভারের বিরুলিয়া ইউনিয়নের শ্যামপুর, কমলাপুর, কুমারখোদা, বাগ্নীবাড়ী, সাদুল্লাপুর এলাকায় বিএডিসি’র ৫টি গভীর নলকূপের মাধ্যমে সেচের সাহায্যে বিগত ২০০৯ সাল থেকে ফুল, সবজি ও নীঁচু এলাকায় ধান চাষ হচ্ছে। এ এলাকার লাল মাটিতে সারা বছরই গোলাপ ফুলের চাষ হয়, তাই স্থানীয় লোকজন এ এলাকার নাম দিয়েছে গোলাপ গ্রাম। প্রতিদিন ঢাকাসহ আশেপাশে এলাকার হাজারো দর্শনার্থী ভীড় জমায় গোলাপ গ্রামে। গোলাপ ছাড়াও এ এলাকায় গ্ল্যাডিওলাস, চন্দ্রমল্লিকা ভালো জন্মে।
তাছাড়া পাশবর্তী এলাকা সাধাপুর, চাকুলিয়া, নিকরাইল, গোপের বাড়ী এলাকাতেও বিএডিসি’র গভীর নলকূপের সেচের সাহায্যে প্রচুর সবজি, ফুল ও নীঁচু এলাকায় ধান চাষ হয়।