[gtranslate]

কৃষিতে নভেল বেসিলাস, পরিবেশ বান্ধব ও কৃষি গবেষণার যুগান্তকারী সফলতা -বারি পরিচালক।

প্রকাশিতঃ ৫:২৪ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ২০, ২০২০

কৃষিবিদ দীন মোহাম্মদ দীনু

কৃষিতে নভেল বেসিলাস এর প্রয়োগ পরিবেশ বান্ধব ও কৃষি গবেষণার যুগান্তকারী পদক্ষেপ। এটি একটি নতুন বিষয় যার উপর আরো  গবেষণা করতে হবে বলে জানান বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট এর পরিচালক (গবেষণা) ড. মো. মিয়ারুদ্দীন। তিনি ২০ নভেম্বর ২০২০ আঞ্চলিক কৃষি গবেষণা কেন্দ্র, হাটহাজারি, চট্টগ্রামে কৃষিতে নভেল বেসিলাস এর ব্যবহার এবং প্রয়োগে কৃষির সাফল্য ত্তথা বেগুনের ঢলে পড়া রোগ দমনে এক কৃষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন। উপকারী নভেল বেসিলাস কর্মসুচি এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।
তিনি আরও বলেন, সারা দেশ ব্যাপী পরিবেশ বান্ধব নভেল বেসিলাস কৃষকের কাছে সহজ ভাবে পৌছে দিতে হবে যা বিশ্বের বহুদেশ করে যাচ্ছে, তবে পরে হলেও আমরা শুরু করেছি। অঞ্চল ভিত্তিক এই গবেষণার কার্যক্রম আরো বাড়াতে হবে।


মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো. খলিলুর রহমান ভূইয়ার সভাপতিত্বে এবং বৈজ্ঞানিক সহকারী আলাউদ্দিন আল আজাদ এর উপস্থাপনায় প্রধান অতিথি হিসেবে প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট এর পরিচালক (গবেষণা) ড. মো. মিয়ারুদ্দীন। এসময় প্রধান গবেষক ড. মো. তোফাজ্জল হোসেন রনি প্রশিক্ষণের মুল প্রবন্ধ তুলে ধরেন। প্রশিক্ষক হিসেবে অংশনেন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মো. পানজারুল হক। অনুষ্ঠানে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন ড. মো. জামাল উদ্দিন।
বক্তারা বলেন, আমদের দেশে কোন ফরমোলেশন পণ্য নেই। বড় আকারে বায়ো-সেন্টার করে এ ধরনের কাজকে অগ্রাধিকার দিতে হবে। বক্তারা আরো জানান প্রতিবেশি বহু দেশেই আজ বায়োফার্মোন্টারের মাধ্যমে এই কাজ চলছে, আমাদের দেশে তা এখনও গড়ে ওঠেনি। সুতরাং কৃষিবিদদের আজ ভাবতে হবে।
সভাপতি ড. খলিল বলেন, উপকারি নভেল বেসিলাস ক্ষতিকর জীবাণু কে বাধা দিয়ে গাছের নালি পথকে সচল রাখে ফলে ঢলে পড়া রোগ হচ্ছে না।
ব্যাক্টেরিয়ার জীবন ব্যবস্থাপনা, সংরক্ষণ, নামকরণ এবং কৃষিতে উপকারী বেসিলাস এর ব্যবহার প্রয়োগ এবং ঢলে পড়া রোগ দমনে পানি ব্যবস্থাপনা নিয়ে বেসিলাস পরিবারের কৃষকদের প্রশিক্ষণ দেয়া হয়।
পরে প্রধান অতিথি একটি প্রতিনিধি দল নিয়ে আধুনিক উদ্ভিদ রোগতত্ত্ব ল্যাবে ব্যাক্টেরিয়ার বিভিন্ন কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ করেন। ল্যাবে ড. হোসেনকে সহযোগিতা করেন মো. আনোয়ার হোসেন।